অনলাইন পেমেন্টর নাম করে আবারও জালিয়াতির শিকার খাস কলকাতার এক যুবতী

0
679

দিনে দিনে লোক ঠকিয়ে টাকার জালিয়াতি যেনো একটা ব্যবসায় পরিণত হয়েছে। বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে অনলাইন পেমেন্টের মাধ্যমে নানাভাবে মানুষকে ফাঁদে ফেলে বুঝিয়ে শুনিয়ে টাকা আদায় করা হচ্ছে। যারা বুঝতে পারছেন তারা সতর্ক থাকছেন আবার কেউ নিজের ভুলবশত সেই ফাঁদে নিজেই পা দিচ্ছেন।

এবারের ঘটনাটি ঘটেছে খাস কলকাতার বুকে। নিজেদের মিলিটারি ব্যক্তি হিসেবে পরিচয় দিয়ে ব্যবসার ক্ষেত্রে যুবতীর দেওয়া নম্বরে অনলাইন পেমেন্টর মাধ্যমে তার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা আদায় করা হয়। এক্ষেত্রে দুষ্কৃতীরা তাদের নাম, আঁধার কার্ড, ছবি সহ নানা তথ্য পাঠায় যার সত্যতা যাচাই না করেই তিনি যথারীতি সহজেই বিশ্বাস করে নেন। তারপরই নানাভাবে কথার মারপ্যাঁচের মধ্য দিয়ে টাকা দেওয়ার নাম করে QR কোড স্ক্যানের মাধ্যমে সেই যুবতীর অ্যাকাউন্ট থেকেই কয়েক হাজার টাকার জালিয়াতি করা হয়।



ফেসবুক লাইভ করে ঘটনাটি সবার সামনে এনেছেন সেই যুবতীর বান্ধবী মৌমিতা পাল এবং জানিয়েছেন বিভিন্ন আইটিসেল বা থানায় গেলেও এই ঘটনাটি নিয়ে কোনো পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। প্রশাসনের ব্যর্থতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। সেই জালিয়াতিদের সকল তথ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে সাধারণ মানুষকে সাবধান থাকতে বলেছেন ও তাদের এই গ্রুপ টি এখনও যে অ্যাক্টিভ আছে তারও দাবি জানিয়েছেন।

এর আগেও আমরা এইরূপ বহু ঘটনা আপনাদের সামনে এনেছি। যত দিন যাচ্ছে যেভাবে জালিয়াতির পরিমাণ বেড়ে চলেছে তাতে সত্যিই কী প্রশাসনের কিছু করার নেই? পরিস্থিতি আর কত ভয়ংকর হলে মানুষের সুরক্ষার স্বার্থে পদক্ষেপ নেবে পুলিশ প্রশাসন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

প্রতারণা সম্পর্কিত লাইভ ভিডিওটি দেখে নিন:-
https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=4322570567806233&id=100001599982582

বি. দ্র – উল্লেখিত সকল তথ্য প্রমাণ ও স্ক্রিনশটগুলি সেই যুবতীর বান্ধবী অর্থাৎ মৌমিতা পালের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে