অভিনেত্রীর সঙ্গে রাত্রিবাসের খবর চাপতেই হুমকি সাংবাদিককে, সে জেলের ঘানি টানিয়েছিল শাহরুখকে

0
12

বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে ফুটপাতবাসীদের পিষে দেওয়া কিংবা হরিণ শিকার জেলের দরবার হয়েছিলেন সালমান খান। কিন্তু বাদশা খান‌ও যে অতীতে গ্রেফতার হয়েছিলেন পুলিশের হাতে তার জানতেন? তিন দশক আগের সেই ঘটনার উল্লেখ রয়েছে অনুপমা চোপড়ার লেখা বই, ‘কিং অব বলিউড’-এ।

Advertisement

১৯৯২ সাল। শাহরুখ তখন কাজ করছেন তাঁর বহু চর্চিত এবং বিতর্কিত ছবি ‘মায়া মেমসাব’-এ। বিপরীতে দীপা শাহী। অনুপমার বই বলছে, সে সময়ে এক পত্রিকায় লেখা হয়, ছবির একটি অতি-ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের প্রস্তুতি হিসেবে নাকি এক হোটেলে রাত কাটিয়ে এসেছেন শাহরুখ-দীপা এবং পরদিন নাকি সেই যৌনদৃশ্যের শ্যুটিং হয় দীপার স্বামী পরিচালক কেতন এবং চিত্রগ্রাহকের উপস্থিতিতেই।

পত্রিকার সেই রিপোর্ট পড়ে রাগে অগ্নিশর্মা হয়ে ওঠেন শাহরুখ। ‘কিং অব বলিউড’-এ অনুপমা লিখেছেন, কিং খানের সন্দেহ গিয়ে পড়ে কিথ ডি’কোস্টা নামে এক সাংবাদিকের উপর। সোজা তাঁর দফতরে পৌঁছে গিয়ে তাঁকে রীতিমতো হেনস্থা করেন শাহরুখ। ভুয়ো খবর লেখা হয়েছে দাবি করে দেন হুমকিও। এর পরেই নাকি পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন ওই সাংবাদিক। গ্রেফতার হতে হয় বলিউডের ‘বাদশা’কে।

অনুপমার বইতেই লেখা হয়েছে, পরবর্তীতে এক সাক্ষাৎকারে এই ঘটনার কথা স্বীকারও করেন শাহরুখ নিজে। জানান, কী ভাবে ওই সাংবাদিকের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছিলেন তিনি। যার ফলস্বরূপ তাঁর ছবির সেটে পৌঁছে যায় পুলিশ। সাদা পোশাকের পুলিশকর্মীদের দেখে অবশ্য প্রথমে অনুরাগী বলে ভুল করেছিলেন কিং খান!

সেই ভুল ভাঙে অচিরেই। পরে জামিনে ছাড়া পেয়ে ‘বাদশা’ জানতে পারেন, কিথ ডি’কোস্টা ওই খবরটি লেখেননি। তাই পরে ওই সাংবাদিকের কাছে গিয়ে নাকি ক্ষমাপ্রার্থনাও করে আসেন শাহরুখ।

Advertisement

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে