উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের প্যানেলে দুর্নীতির অভিযোগ, মামলা হল হাইকোর্টে

0
86

করোনা আবহেই প্রাথমিক, উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ নিয়ে বড় ঘোষণা করেছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনকি তিনি এও জানিয়েছেন যে, পুজোর আগে ও পরে প্রচুর শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। সেই অনুযায়ী স্কুল সার্ভিস কমিশনের তরফে আপার প্রাইমারি স্তরে শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউয়ের নোটিশ প্রকাশিত হয়েছে। সেই খবর শুনে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছিল প্রচুর চাকরি প্রার্থীরা। তবে এবার শিক্ষক নিয়োগ প্যানেলে অনিয়মের অভিযোগ তুলে মামলা দায়ের হল কলকাতা হাইকোর্টে।

জানা গেছে, ফেরদৌস শামিম নামের এক আইনজীবী বৃহস্পতিবার উচ্চ আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। তার অভিযোগ, ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেণীর নিয়োগের আগে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ মৌখিক পরীক্ষা নিয়েছিল। সেই মৌখিক পরীক্ষা অনুযায়ী তালিকা প্রকাশ করা হয় কিন্তু তারা কত নম্বর পেয়েছেন তা মেধাতালিকায় প্রকাশ করা হয়নি। যোগ্য প্রার্থীদের মেধাতালিকায় স্থান দেওয়া হয়নি। আগামী সপ্তাহে উচ্চ আদালতে এই মামলার শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে।

এই প্রসঙ্গে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী টুইট করে বলেছেন, “মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগে কোনওরকম দুর্নীতি বা অস্বচ্ছতা হবে না। কিন্তু মেধার নম্বর না থাকলে কীসের ভিত্তিতে তালিকা তৈরি করা হল।” সেই টুইটের পর একদিন যেতে না যেতেই এবার উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়া ঘিরে জটিলতা হাইকোর্ট পর্যন্ত গড়াল।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে