Symptoms of lung damage কী কী উপসর্গ দেখে বুঝবেন আপনার ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে!

0
27
Symptoms of lung damage কী কী উপসর্গ দেখে বুঝবেন আপনার ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে

Ritika Roy, DNI: করোনাকালে অনেক মানুষের ফুসফুসের কার্যক্ষমতা কমে গিয়েছে। দূষণও একটা কারণ। ধূমপান ও টোব্যাকো সেবনের কারণেও ক্ষতিগ্রস্ত হয় ফুসফুস। ক্ষতি হতে শুরু করে চুপিসারে। মানুষের বোঝার উপায় থাকে না। ক্ষতি বেড়ে যাওয়ার পর মানুষ বুঝতে পারে শ্বাস নিতে সমস্যা হচ্ছে। কিন্তু শরীরের নাম মহাশয়। সে কিন্তু নিজের মতো করে জানান দিতে শুরু করে। ফুসফুসের কার্যক্ষমতা কতখানি দুর্বল হয়েছে বা হচ্ছে; তাই কিছু বিষয়ে লক্ষ্য রাখলে আপনি আগেই বুঝে যাবেন। অল্পেতেই চিকিৎসা শুরু করলে বড় ক্ষতি আটকাতে পারবেন।

১. প্রত্যেক মিনিটে শ্বাসের প্রবণতা ও গতি বেড়ে গেলে বুঝবেন শ্বাস নিতে সমস্যা শুরু হয়েছে আপনার। সতর্ক হয়ে যান তৎক্ষণাৎ।
২. ফুসফুস দুর্বল হলে মুখে নীলচে আভা দেখা দিতে শুরু করে। এমনকী, ঠোঁট জোড়া, নখও নীল হয়ে যেতে পারে। বুঝতে হবে শরীর সঠিক পরিমাণে অক্সিজেন পাচ্ছে না বলেই নীলচে ভাব দৃশ্যমান। ত্বকের রং ফ্যাকাশে কিংবা ঘিয়ে হয়ে যেতে পারে।
৩. শ্বাস নেওয়ার সময় অদ্ভুত ধরনের আওয়াজ হতে পারে। বুঝতে হবে শ্বাস নিতে অসুবিধে হচ্ছে।
৪. নিশ্বাস নেওয়ার সময় নাকের ফুটো ফুলে যেতে পারে। আরও বড় হয়ে যেতে পারে। বুঝতে হবে শ্বাস নিতে অসুবিধে তৈরি হচ্ছে।
৫. বুকে অনেক বেশি জোর দিতে হচ্ছে শ্বাস নেওয়ার সময় । ফুসফুসে যথেষ্ট পরিমাণ অক্সিজেন পৌঁছাতে বাধা পেলে এমন সমস্যা হয়।
৬. কপালে ঘাম, মাথার ভিতরে ঘাম হতে পারে। কিন্তু শরীর গরম হয় না। ঠান্ডাই থাকে। শ্বাস নেওয়ার প্রবণতা যদি বাড়ে তবে এটা হতে পারে।
৭. মানুষ শিরদাঁড়া সোজা করে দাঁড়াতে পারেন না। বুকে কষ্ট হয়। নিচের দিকে ঝুঁকে পড়েন। এমনকী, বসে থাকার সময়ও তিনি সামনের দিকেই ঝুঁকে থাকেন।

এই সাতটি উপসর্গ যদি কোনও ব্যক্তির মধ্যে লক্ষ্য করেন, তৎক্ষণাৎ তাঁকে সজাগ করুন। জানবেন, ফুসফুসের রোগ সহজে সারতে চায় না। ফুসফুসের ক্ষতি চিরস্থায়ী ক্ষতি। তাই সময় থাকতে যত তাড়াতাড়ি চিকিৎসা শুরু হবে, ততই মঙ্গল।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে