জেনে নিন কীভাবে SMS বিক্রি করে একজন পেলেন ৯১ লক্ষ টাকা

0
56

যখনই স্মার্টফোনে অতটাও ব্যবহার ছিল না তখন এসএমএসের মাধ্যমে সবাই কথা বলতে বেশি পছন্দ করত। যদিও যত দিন যাচ্ছে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ছে ততোই এসএমএসের পরিমাণটা কমছে। কিন্তু একসময় রমরমিয়ে চলতো এসএমএস এর ব্যবহার, এবার ভোডাফোন কোম্পানি বিশ্বের প্রথম এসএমএসকে নিলাম করলেন। যা চড়া দামে বিক্রি করা হলো।

Advertisement

SMS এর পুরো অর্থ হল ‘শর্ট মেসেজ সার্ভিস’। গোটা বিশ্বে প্রথম বার এসএমএস পাঠানো হয়েছিল ১৯৯২ সালের ৩রা ডিসেম্বর। এই মেসেজটি NFT হিসাবে বিক্রি করা হয়েছে। NFT এর পুরো অর্থ হলো ‘নন-ফানজিবল টোকেন।’ ব্লকচেন নামক ডিজিটাল লেজারে সংরক্ষিত ডেটার ইউনিটকে এই নামে বলা হয়। বিশ্বের প্রথম মেসেজকে এই আকারে বিক্রি করা হলো।

এই মেসেজটি প্যারিসের এক ব্যক্তি কিনেছেন। তিনি ৯১ লক্ষ টাকা এর জন্য প্রদান করেছেন। কিছুদিন আগে গোটা বিশ্বের প্রথম উইকপিডিয়াকেও নিলামে তোলা হয়েছিল, তাঁর বিক্রি মূল্য ছিল ৭ লক্ষ ৫০ হাজার ডলার টাকা। প্রথম উইকিপিডিয়াওকেও NFTএর আকারে ব্যবহার করা হয়েছিল।

ডিজিটাল আর্ট মিউজিক কম্পোজিশন এবং সংগ্রহযোগ্য কার্ডকে NFT এর আকারে বিক্রি করা হয়ে থাকে। এই সব জিনিস কেনার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করে থাকেন জনপ্রিয় তারকারা। এমনকি মেসি, রোনাল্ডএর মতো তারকারাও কেনার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করে থাকেন। বিশ্বের প্রথম মেসেজ লেখা ছিল ‘মেরি ক্রিসমাস’।

আজ থেকে ২৯ বছর আগে প্রোগ্রামার নিল পাপওয়ার্থ তাঁর সহকর্মী রিচার্ড জার্ভিসকে ‘মেরি ক্রিসমাসের’ শুভেচ্ছা এসএমএসের আকারে পাঠিয়েছিলেন। ক্রেতার হাতে এই এসএমএসটি NFT আকারে পাঠানো হয়েছে। তাছাড়াও প্যারিসের ওই ব্যক্তিকে সার্টিফিকেট এবং ডিজিটাল ছবি দেওয়া হয়েছে। ডিজিটাল ছবিতে ফোনের স্ক্রিনে ফুটে উঠা ইনকামিং মেসেজের প্রতিরূপ দেওয়া রয়েছে।

Advertisement

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে