পাঁচমূর্তির জালিয়াতির পর্দাফাঁস! বিপাকে রাজ্য প্রশাসন

0
289



প্রিয়াঙ্কা পাল, DNI: সম্প্রতি বাংলায় একের পর এক ভুয়ো অফিসারের পর্দাফাঁস হচ্ছে যার জেরে বিপাকে পড়েছে রাজ্য সরকার। প্রথমে ভ্যাকসিন কাণ্ডের ভুয়ো আইএএস দেবাঞ্জন দেব থেকে শুরু করে উঠে এসেছে একের পর এক ব্যক্তির নাম। শুধু ভুয়ো ভ্যাকসিন কান্ড নয়, আরও অনেক প্রতারণামূলক কার্যকলাপের সাথে যুক্ত ছিলেন দেবাঞ্জন যা ইতিমধ্যেই সামনে এনেছে পুলিশ প্রশাসন।

দেবাঞ্জনের সাথে সেই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত রয়েছে ভুয়ো বিচারক সমীর দুবে, ভুয়ো সিবিআই অফিসার সনাতন রায়চৌধুরী ও শুভদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় আর ভুয়ো মানবাধিকার কমিশন আধিকারিক বেঞ্জামিন হেমব্রম।

ভুয়ো ভ্যাকসিনেশনের নায়ক দেবাঞ্জন দেবের নাম প্রকাশ্যে আসতে শুরু হলেই একের পর এক ব্যক্তির প্রতারণার কীর্তিকলাপ সামনে আসে। নিজেদের সরকারি আধিকারিকের পরিচয় দিয়ে অনলাইন ইন্টারভিউয়ের নাম করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন কেউ বা কেউ বেছে নিয়েছেন অন্য কোনো পন্থা।

যারা তাদের এই ঘৃণ্য অপরাধের শিকার হয়েছেন তাদের দাবি, অভিযুক্তদের সবারই নীল বাতি লাগানো গাড়ি আছে আর তাই তারা বিশ্বাস করে বসেছেন যে সকলেই সরকারি আধিকারিক।অবশ্য ইতিমধ্যেই এই ব্যাপারটি নিয়ে সক্রিয় ভূমিকা নিতে শুরু করেছে রাজ্য প্রশাসন। একের পর এক নীল বাতি লাগানো গাড়ি বাজেয়াপ্ত করে সত্য প্রকাশ্যে এনেছে তারা। অনেককে ইতিমধ্যে গ্রেফতারও করা হয়েছে। তবে এই সকল ক্ষেত্রে নাম জড়িয়ে গেছে রাজ্য সরকারের। ফলে বিরোধী পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষের কটুক্তির শিকার হতে হচ্ছে তাদের।

এভাবে একের পর এক ভুয়ো আধিকারিক যেভাবে শহরের বুকে জাল বিস্তার করেছে তা নিয়ে চিন্তিত সাধারণ মানুষ থেকে সরকার। এবার রাজ্য সরকার কিভাবে এই জালিয়াতির বিরুদ্ধে পর্যাপ্ত পদক্ষেপ নেয় তাই এখন দেখার।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে