বাংলা থেকে রেকর্ড গড়লো পাঁচ বছরের খুদে

0
73

সুস্মিতা নন্দী,DNI: ৫ বছরের মেয়ে নাকি যন্ত্র? এই প্রশ্নের মুখে ফেলে দিল সমস্ত বঙ্গবাসীকে। কম্পিউটারে আসছে একের পর এক পাখির ছবি আর সেও না থেমে অনায়াসে বলে দিচ্ছে পাখির নাম।

১১১টি বিভিন্ন প্রজাতির পাখির নামই তার মুখস্থ। অনর্গল বলতে সময় লাগল মাত্র ২ মিনিট ৩৪ সেকেন্ড। পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনা পুর এলাকার জয়ন্তীপুরের ছোট্ট মেয়ে সোয়েতা দত্ত, বয়স মাত্র ৫ বছর ।

সোমবার রথযাত্রার শুভদিনে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম করে নিল ছোট্ট সোয়েতা। সোমবারই পৌঁছে যায় তার বাড়ি পদক, শংসাপত্র ও কিছু বই এবং পুরস্কার।

তার বাবা-মার থেকে জানা যায় ছোট থেকেই তার মেয়ের প্রখর বুদ্ধি অনায়াসেই মুখস্ত করে নিতে সবকিছুই। বাবা গণিতের শিক্ষক অভিজিৎ দত্ত, মা গৃহবধূ সুদেষ্ণা তাদের এই ছোট্ট তাকে নিয়ে গর্বে বুক ফুলে যাচ্ছে ।সুদেষ্ণার কথায়, “ছোট থেকেই মেয়ের স্মৃতিশক্তি প্রখর। অনায়াসে এক সঙ্গে অনেক জিনিসের নাম অনর্গল বলে দিতে পারে।” ছোট থেকেই তারা লক্ষ্য করে পশুপাখির উপর যেন আলাদাই টান সোয়েতার। শুধু পড়াশোনার ক্ষেত্রে নয় হারমোনিয়াম বাজিয়ে গান কবিতা-পাঠ সবেতেই দক্ষ পাঁচ বছরের এই ছোট্ট খুদে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে