“বাড়িয়ে দাও তোমার হাত”, বাংলার অসহায় মানুষের পাশে থাকার অঙ্গীকারে এবার এগিয়ে এলেন নিউটাউনের তিন যুবক

0
436

কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ আছরে পড়ায় কার্যত লকডাউন জারি রয়েছে গোটা রাজ্য জুরে। ফলে গতবছরের মতো এবারও কাজ হারিয়েছেন বহু মানুষ। বেড়েছে বেকারত্ব, আর সাথে দেখা দিয়েছে বাংলার মানুষের অর্থনৈতিক দুর্দশাগ্রস্ত অবস্থা। আর তার মধ্যেই ঘটে গেছে ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের তাণ্ডব যার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন অনেক মানুষ। এইসকল বিপন্ন মানুষের উদ্দেশ্যে এবার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন নিউটাউনের বাসিন্দা বিভাষ কুমার সরকার ও তার দুই বন্ধু দীপঙ্কর কর্মকার ও দেবাশীষ ঘোষ।

অর্থনৈতিকভাবে ভেঙে পড়া মানুষের মুখে দুবেলা দুমুঠো খাবারের জোগান দেওয়ার জন্য এক প্রশংসনীয় পদক্ষেপ নিলেন তারা। প্রথমে এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যেই মাস্ক, স্যানিটাইজার, খাবার সহ পথের কুকুরদের জন্য খাবার দেওয়ার মতো কাজ তারা ইতোমধ্যেই করেছেন। তবে এবার এলাকার মধ্যেই সীমাবদ্ধ না থেকে এগিয়ে এলেন উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিপর্যস্ত মানুষের জন্যে। নিজেদের সাধ্যমতো উত্তর ২৪ পরগনার হিঙ্গলগঞ্জে প্রায় ৫০০ মানুষের কাছে পৌঁছে গেলেন মুড়ি, চিড়ে, বাতাসা, মেডিসিন, ORS ও বাচ্ছদের দুধ সহ নানা খাদ্যসামগ্রী নিয়ে।



ইয়াসের ফলে ছারখার হয়ে গিয়েছে সুন্দরবন এলাকা।চারিদিকে শুধু জল আর মানুষের হাহাকার। এবার সুন্দরবনের মানুষের সাহায্যার্থে বাড়িয়ে দিলেন তাদের হাত। গতকাল নিজেদের ওপেন কিচেন থেকে গোসাবার কুমিরমারি এলাকার চারটি পাড়ায় প্রশাসন ও গ্রাম পঞ্চায়েতের সহায়তায় প্রায় ২০০০ মানুষের জন্য খাদ্যসামগ্রী নিয়ে গেলেন তারা। ডাল, ডিম, খাবার জল থেকে শুরু করে নানা শুকনো খাবার দেওয়া হয়েছে তাদের। এছাড়াও কিছু অর্থ সাহায্য দিয়েও মানুষের পাশে থেকেছেন তারা। তাদের এই নিঃস্বার্থ প্রয়াসকে সত্যিই কুর্নিশ জানাই। এভাবেই মানুষ এগিয়ে আসুক মানুষের পাশে আর বারবার জয় হোক মানবিকতার।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে