বিল বকেয়া থাকায় নার্সিংহোম থেকে বেরোতে বাঁধা রোগীকে

0
79

কোভিডে আক্রান্ত স্বামীর জন্য অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করেও হাসপাতালের দোরে দোরে হন্যে হয়ে ঘুরলেও স্বামীকে ভর্তি করাতে পারলেন না যুবতী। উল্টে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া মেটাতে গিয়ে হার বন্দক রাখতে হল তাকে। এরপর কোনমতে তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাহায্যে স্বামীকে শ্রীরামপুরের শ্রমজীবী হাসপাতালে ভর্তি করলেও পরে আবারও বন্দক রাখতে হল যুবতীকে। কোভিড হাসপাতালে বেড মিললেও পরে বিল বকেয়া থাকায় নার্সিংহোম থেকে করোনা রোগীকে অন্য হাসপাতালে স্থানান্তরে বাঁধা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ ওঠে। “বাড়ির কাউকে রেখে গেলে, তবেই নার্সিংহোম থেকে ছাড়া হবে। বকেয়া টাকা না মেটালে রোগী ছাড়া যাবে না বলে অভিযোগ নার্সিংহোমের বিরুদ্ধে।” পরে পুলিশ গিয়ে রোগীকে নার্সিংহোম থেকে কোভিড হাসপাতালে নিয়ে যায়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে