যত কান্ড ১০৬ নং কেবিনে

0
99

দাম্পত্য জীবনে সমস্যা থাকলেও ১৭ তারিখ শোভন চ্যাটার্জীর গ্রেপ্তারির খবর পেয়ে ছুটে গিয়েছিলেন তার স্ত্রী রত্না চ্যাটার্জী। সেদিন সকালে কিছুক্ষণ পর তিনি বেরিয়ে গেলেও শোভন পুত্র সপ্তর্ষিকে বাবার পাশেই দেখতে পাওয়া গেছে বলেই জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। ১৮ তারিখ এসএসকেএম হাসপাতালে তার সাথে দেখা করতে যান সপ্তর্ষি। তাকে রাখা হয়েছিল উডবার্ন ওয়ার্ডের ১০৬ নম্বর কেবিনে।

হঠাৎই অশান্তির সৃষ্টি হয় ১৯ তারিখ থেকে। ঐদিন বোনকে নিয়ে বিকেলবেলা বাবার সাথে দেখা করতে যান সপ্তর্ষি। সেখানে উপস্থিত বৈশাখী ব্যানার্জির সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়েন শোভন পুত্র। তখনই শোভন চ্যাটার্জি সপ্তর্ষি কে ঘর থেকে বেরিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন। এরপর তৃণমূল কংগ্রেসের সিনিয়র নেতার কথা মেনে বাবার কাছে ক্ষমা চাইতে যান সপ্তর্ষি। তখন তাকে আর ভিতরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি বলেই জানিয়েছেন তিনি। তবে কেন হঠাৎ এমন সিদ্ধান্ত, কি এমন ঘটলো ১০৬ নম্বর কেবিনে, তা স্পষ্ট নয়। এই নিয়ে রাজনৈতিক থেকে হাসপাতাল মহলে চলছে গুঞ্জন।

By Sukanya

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে