লাখ টাকার চাকরি ছেড়ে কেঁচো সারের ব্যবসা করে কয়েকশো কোটি টাকার মালকিন এই তরুণী

0
233

কথায় বলে ইচ্ছা থাকলেই উপায় হয়। মিরাটের সদর বাজারের বাসিন্দা পায়েল আগারওয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করে পেয়েছিলেন মোটা মাইনের চাকরি। কিন্তু সেই চাকরি ছেড়ে তিনি শুরু করলেন কেঁচো সার বিক্রি ব্যবসা। সেখান আজ কোটি কোটি টাকার মালকিন এই বছর পঁচিশের তরুণী। কিন্তু কীভাবে এমন চাকরি ছেড়ে এই ব্যবসা চালু করার কথা মাথায় এলো তার।

Advertisement

পায়েল একটি মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছেন তিনি। আসলে তার ইচ্ছে ছিল কেবল নিজে নয় গ্রামের সকল মানুষকে স্বনির্ভর করবেন। তাছাড়া পরের চাকরি নয় নিজেই কোন কাজ করে দেখাবেন। ২০১৬ সালে বি টেক কমপ্লিট করেছেন তিনি। প্রথম বছরেই চাকরি পেয়ে যান। কিন্তু শীঘ্রই সেই চাকরি ছেড়ে দেন তিনি।

তার বাবা কৃষি কাজ করতেন তাই বাড়িতে দশটি গরু ছিল। তাই নিজের বাড়িতেই ডেয়ারি ফার্ম খুলেছিলেন তিনি। দুধের পাশাপাশি সুপারির ব্যবসা করতে শুরু করেন। গরুর গোবর থেকে যে কেঁচো সার তৈরি করে টাকা আয় হয় তা কয়েকটি ভিডিওর মাধ্যমে তিনি জানতে পারেন পায়েল।

তারপর তিনি এই বিষয়ে আরো বেশি পড়াশোনা শুরু করেন। দীর্ঘদিনের পরিশ্রম পড়াশোনা এবং রিসার্চ-এর এর ফলে অবশেষে বানিয়ে নেন কেঁচো সার। এরপর সারা ভারতে এর রপ্তানি শুরু করেন তিনি। প্রতি মাসে কয়েক কোটি টাকা রোজগার করেন পায়েল আগারওয়াল।

Advertisement

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে