শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তৃণমূল বিধায়ক সাধন পান্ডে

0
48



প্রিয়াঙ্কা পাল, DNI: অসুস্থ মানিকতলার তৃণমূল বিধায়ক সাধন পান্ডে (Sadhan Pande)। প্রায় অচৈতন্য অবস্থায় তাকে হাসপাতালে আনা হয়। গতকাল রাতে তাকে বাইপাসের অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে বিধায়ককে। হাসপাতাল সুত্রে জানা গিয়েছে, প্রবল কাশি রয়েছে সাধনবাবুর। সাথে রয়েছে ফুসফুসে গভীর সংক্রমণ। ভেন্টিলেশনে আছেন মানিকতলার বিধায়ক (TMC MLA)। তবে জানা গিয়েছে, বিধায়কের শারীরিক অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তার সিওপিডি (COPD) ও রেনাল সমস্যা রয়েছে। চিকিৎসকরা সব কিছু পরীক্ষানিরীক্ষা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন। ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রাখায় তার শারীরিক পরিস্থিতি কিছুটা হলেও স্থিতিশীল। এমনকি বিধায়কের জন্য ছার সদস্যের মেডিক্যাল টিম গঠন করা হয়েছে। সেখানে ফুসফুসরোগ বিশেষজ্ঞ ছাড়াও রয়েছেন এন্ডোক্রিনোলজিস্ট, মেডিসিনের বিশেষজ্ঞ। তার ফুসফুস সম্পূর্ণ কাজ করে না। এমনকি তার কিডনির সমস্যাও রয়েছে। তার রক্তপরীক্ষা করা হচ্ছে। ইসিজি করা হবে বলেও জানা যাচ্ছে। সাধনবাবুর বুকের সিটি স্ক্যান করানোরও পরিকল্পনা রয়েছে চিকিৎসকদের। সমস্ত কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন চিকিৎসকরা।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিনের বিধায়ক সাধন পান্ডে। বিজেপির কল্যাণ চৌবকে হারিয়ে নির্বাচনের জয়লাভ করেছিলেন তিনি। গত এপ্রিলের শেষ সপ্তাহেও অসুস্থ হয়ে পরেছিলেন রাজ্যের ক্রেতা সুরক্ষা মন্ত্রী। ২১ এপ্রিল তিনি করোনার টিকা (Corona Vaccine) নিয়েছিলেন। পরদিন সকাল থেকেই শ্বাসকষ্ট বাড়ে বিধায়কের। সেসময় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই হাসপাতাল থেকে বাড়িতে ফিরে এসেছিলেন তিনি। তাকে বিশ্রামে থাকতে বলা হয়েছিল। তিন মাস কাটতে না কাটতেই ফের শ্বাসকষ্টের সমস্যা দেখা দিল। উদ্বিগ্ন পরিবারের লোকেরা। নিয়ম অনুযায়ী, মন্ত্রীর কোভিড (COVID-19) পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর আগে একবার স্ত্রী করোনা (Corona Virus) পজিটিভ হওয়ায় নিজেই হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সাধন পাণ্ডে। সেই সঙ্গে নিয়মমাফিক নিজের করোনা পরীক্ষাও করিয়েছিলেন। সেসময় তার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে