সরকারি সহায়তা পাবেন নিহত আনন্দ বর্মণের পরিবার, শীতলকুচিতে নিহতদের স্বজনদের সঙ্গে সাক্ষাৎ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

0
14

কোচবিহার :

চতুর্থ দফা ভোটে ১০ এপ্রিল কোচবিহারের শীতলকুচিতে ভোটের লাইনে দাঁড়িয়ে গুলিবিদ্ধ হয় ১৮ বছরের যুবক আনন্দ বর্মণ। এরপরও কেন্দ্রের একটি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে নিহত হন আরও চারজন। গোটা ঘটনা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে তোলপাড় শুরু হয়। নির্বাচন কমিশনের ৭২ ঘণ্টার নিষেধাজ্ঞা উঠতেই বুধবার কোচবিহারের মাথাভাঙ্গায় যান মমতা ও আনন্দের দাদু ও মামার সঙ্গে দেখা করেন তিনি। এরপর মাথাভাঙ্গার জনসভা থেকে নিহতদের পরিবারের দায়িত্ব নেওয়ার কথা ঘোষণা করেন তবে নির্বাচনী বিধি মেনে কতটা কি করা হবে তা এখনও জানাননি তিনি। আরও বলেন, “ভোট মিটলে শীতলকুচির ঘটনা নিয়ে তদন্ত হবে। আনন্দ বর্মণকে যারা খুন করেছে, তাদের আমরা ধরবই। দোষীদের শাস্তি দেওয়া হবে।’

By Priyanka

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে