রাজ্যের নতুন মন্ত্রিসভায় বাড়ল মহিলা মন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী – সহ নয়জন মহিলা সদস্য

0
68

প্রচারের শুরু থেকেই যে স্লোগান ছিল ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়’ তার চাক্ষুষ রূপ দেখা গেল মন্ত্রিসভাতেও। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে ৪৪ সদস্যের রাজ্য মন্ত্রিসভায় মহিলার সংখ্যা হল ৯। পূর্ণমন্ত্রী হয়েছেন শশী পাঁজা। চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, রত্না দে নাগ এবং সন্ধ্যারানী টুডু স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী। শিউলি সাহা, সাবিনা ইয়াসমিন, বীরবাহা হাঁসদা এবং জোৎস্না মান্ডি প্রতিমন্ত্রীর পদ পেয়েছেন। এভাবেই আগামী পাচঁ বছর নারী শক্তির ক্ষমতায়নের এক অন্য গল্প লিখবে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের তৃণমূল সরকার।

শ্যামপুকুরের বিধায়ক শশী পাঁজা আগের দুইবারের মতনই নারী ও শিশু উন্নয়ন এবং সমাজকল্যাণ দফতরের পূর্ণমন্ত্রী হয়েছেন। পুরুলিয়ার মানবাজারের সন্ধ্যারানী টুডু এবার পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়নের স্বাধীন দায়িত্বের পাশাপাশি পরিষদীয় প্রতিমন্ত্রীও হয়েছেন। হুগলির পান্ডুয়ার সাংসদ রত্না দে নাগের হাতে রয়েছে পরিবেশ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি এবং জৈব প্রযুক্তি বিষয়ক দফতর। পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশপুরের দ্বিতীয়বারের বিধায়ক শিউলি সাহা হয়েছেন পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী। ঝাড়গ্রাম থেকে এ বারই প্রথম বিধায়ক হয়ে বন প্রতিমন্ত্রী হয়েছেন সাঁওতালি চলচ্চিত্রের অভিনেত্রী বীরবাহা। বাঁকুড়ার রানিবাঁধ কেন্দ্রে জোৎস্না মান্ডিকে খাদ্য ও সরবরাহ দফতরের প্রতিমন্ত্রী করা হয়েছে। মালদহের মোথাবাড়ির তৃণমূল বিধায়ক সাবিনা ইয়াসমিন এ বার হয়েছেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন এবং সেচ ও জলপথ প্রতিমন্ত্রী। পুর ও নগরোন্নয়নের স্বাধীন দায়িত্বের পাশাপাশি স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ, ভূমি ও ভূমি সংস্কার এবং শরণার্থী ও পুনর্বাসন দফতর পেয়েছেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে