বিধানসভা নয়, সাংসদ পদেই বহাল থাকতে চান বিজেপির নিশীথ প্রামাণিক ও জগন্নাথ সরকার

0
71

রাজ্যের বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা ছিল ৭৭, এখন তা কমে হতে চলেছে ৭৫। এবারের বিধানসভায় মোট পাঁচজন সাংসদকে প্রার্থী করেছিল বিজেপি। চুঁচুড়া থেকে লকেট চট্টোপাধ্যায়, টালিগঞ্জ থেকে বাবুল সুপ্রিয় এবং তারকেশ্বর থেকে স্বপন দাশগুপ্ত বড় ব্যাবধানে হারলেও, কোচবিহারে নিশীথ প্রামাণিক এবং নদিয়ার শান্তিপুরে জগন্নাথ সরকার জিতে গিয়েছেন তবে সাংসদ পদ ছাড়ার ব্যাপারে নারাজ ছিলেন নিশীথ ও জগন্নাথ। সাংসদ পদ ছেড়ে বিধায়ক হয়ে বিধানসভায় বিরোধী শিবিরে বসা একপ্রকার পদস্খলন। নিয়ম অনুযায়ী এক ব্যক্তি একই সঙ্গে সাংসদ এবং বিধায়ক পদে থাকলে ৬ মাসের মধ্যে কোনও একটি পদ তাকে ছাড়তে হয়। তবে তাৎপর্যপূর্ণভাবে কোচবিহার এবং রানাঘাটের এই দুই জয়ী সাংসদ বিধানসভায় নির্বাচিত হলেও এরা বিধায়ক পদে শপথ নেননি। সুতরাং, এটা স্পষ্ট যে এই দুই সাংসদই বিধায়ক পদ ছাড়ছেন কিন্তু কবে সেটা এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

একুশের বিধানসভার ফলপ্রকাশের পর রাজ্যে এখন ঘাসফুলের হাওয়া। এই পরিস্থিতিতে নতুন করে দুই কেন্দ্র থেকে সাংসদদের জিতিয়ে আনার ঝুঁকি নিতে চাইছে না গেরুয়া শিবির। তাই এখন শান্তিপুর এবং কোচবিহারের বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচন এবং পাশাপাশি আরও ৬ মাসের মধ্যে রাজ্যের একাধিক আসনের নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করেছে গেরুয়া শিবির।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে