লোনের টাকা সংক্রান্ত বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে ব্যাংকের কর্মীদের হাতে আক্রান্ত হলেন এক ব্যক্তি

0
50

বাগুইআটির বাইক শোরুম থেকে ইএমআইতে স্কুটি কিনেছিলেন বিধান নগর ১ নম্বর ওয়ার্ড নারায়ণ পুরের বাসিন্দা বিপুল সাউ যিনি পেশায় একজন বেসরকারি কর্মী। লকডাউন চলাকালীন সরকারের পক্ষ থেকে আর বি আই – এর নির্দেশ অনুযায়ী তিন মাস সাধারণ মানুষের কথা মাথায় রেখে ইএমআই স্থগিত রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। সেই অবস্থায় বিপুল সাউ এর কাজ না থাকার দরুন তিনি তার ইএমআই এর টাকা স্থগিত রাখেন।

লকডাউন উঠে গিয়ে পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ার পর পুনরায় আবার তিনি ইএমআই এর টাকা দিতে শুরু করেন। তার বকেয়া এক মাসের টাকা জমে যায় ব্যাংকের কাছে, পুনরায় মাসিক টাকা দেওয়ার পরও বাড়তি টাকা তার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে কেটে নেয়। এ বিষয়ে ব্যাংকের সাথে যোগাযোগ করা হলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানায় স্থানীয় ব্যাংকের ব্রাঞ্চ এ গিয়ে এ বিষয়ে কথা বলার জন্য।

এমত অবস্থায় গতকাল বিপুল সাউ ইন্ডাসিন্ড ব্যাংকে গিয়ে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ সাথে কথা বলতে গেলে কতৃপক্ষ তার সাথে খারাপ ব্যবহার করেন। পাশাপাশি ব্যাংকের কর্মীরা তাকে মারধর করে ব্যাংক থেকে বের করে দেয় বলেও অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার ব্যারাকপুর কমিশনারেটে ইমেল করে অভিযোগ জানিয়েছেন বিপুল সাউ। বরানগর থানার পুলিশ সূত্রে দাবি, দুপক্ষই পুলিশের কাছে এলেও লিখিতভাবে জানিয়েছে, একে অপরের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ নেই। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে দেখা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে