উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ফের জটিলতা! স্থগিতাদেশ জারি কলকাতা হাইকোর্টের

0
86



প্রিয়াঙ্কা পাল, DNI: উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ার জট যেন কাটতেই চাইছে না। আবার নতুন করে বাড়ল জটিলতা। কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ আজ নতুন নির্দেশিকা জারি করল যে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত শিক্ষক নিয়োগ করা যাবে না। তবে ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া চলবে বলে জানিয়েছেন দুই বিচারপতি সুব্রত তালুকদার ও সৌগত ভট্টাচার্য।

আদালত আরও জানিয়েছে, ইন্টারভিউ শেষ করে প্যানেল তৈরি রাখতে হবে। ইন্টারভিউতে ডাক পাওয়া প্রার্থীদের নিয়ে স্বচ্ছ তথ্যভাণ্ডার তৈরি করতে হবে স্কুল সার্ভিস কমিশনকে। ডেটাবেসের মধ্যে প্রার্থীর শিক্ষাগত যোগ্যতা, ইন্টারভিউয়ে প্রাপ্ত নম্বর অবশ্যই থাকতে হবে। পাশাপাশি, যাঁরা ইন্টারভিউয়ে ডাক পায়নি, তাঁদেরও তথ্য ভাণ্ডার তৈরি করতে হবে।

উল্লেখ্য, উচ্চ প্রাথমিকে মোট শূণ্যপদের সংখ্যা ১৪ হাজার ৩৩৯। সোমবার থেকে নিয়োগপ্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। কিন্তু, এরই মধ্যে চাকরি প্রার্থীদের একাংশ ইন্টারভিউ তালিকায় অনিয়মের অভিযোগ তুলে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। হাইকোর্ট জানায়, ২ সপ্তাহের মধ্যে চাকরিপ্রার্থীরা অভিযোগ জানাতে পারবে। আর ১২ সপ্তাহের মধ্যে অভিযোগের নিষ্পত্তি করতে হবে।

হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বিচারপতি সুব্রত তালুকদার ও বিচারপতি সৌগত ভট্টাচার্যর ডিভিশন বেঞ্চে মামলা করেন কয়েকজন পরীক্ষার্থী। স্কুল সার্ভিস কমিশনের সদ্য প্রকাশ করা ইন্টারভিউ তালিকায় একাধিক অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন চাকরিপ্রার্থীরা। তাঁদের দাবি, অভিযোগের নিষ্পত্তি যতক্ষণ না হচ্ছে, নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত রাখা হোক। তার প্রেক্ষিতেই আজ এই নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে