Babul Supriyo: প্রধানমন্ত্রী বাঙালীদের বিশ্বাস করেন না।

0
77

রাত পোহালেই ভবানীপুর উপনির্বাচন যা ঠিক করে দেবে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ভবিষ্যতেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখা যাবে কিনা। যে উপনির্বাচনের দিকে তাকিয়ে গোটা দেশ। তার ঠিক আগের দিনই একটা বড়সর বোমা ফাটালেন দলত্যাগী বিজেপি সাংসদ এবং বর্তমান তৃণমূল কংগ্রেস নেতা বাবুল সুপ্রিয়। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল বুধবার প্রধানমন্ত্রীকে নিশানা করে বলেন, উনি বাঙালীদের বিশ্বাস করেন না।

প্রসঙ্গত ভারতীয় জনতা পার্টি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার পর এই প্রথমবারের জন্য বাবুল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে লক্ষ্য করে কোনো মন্তব্য করলেন। বুধবার দিল্লী থেকে হাওড়ায় ফিরে বাবুল সুপ্রিয় বলেন যে, বিগত সাত – আট বছর যখন তিনি দিল্লিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর দায়িত্ব সামলেছেন, দেখেছেন যে মোদী বাঙালীদের বিশ্বাস করেন না। এমনকি তিনি (মোদী) বাঙালীদের সঙ্গে কোনো রকম ভাল সম্পর্কই তৈরি করতে পারেননি। উনি আরো বলেন, শুধু বাবুলই নন, বাংলা থেকে বিজেপির হয়ে নির্বাচনে জিতে যাঁরাই দিল্লিতে গেছেন, তাঁদের কাউকেই বিশ্বাস করেননি প্রধানমন্ত্রী। এই ঘটনাই প্রমাণ করে, বাংলা এবং বাঙালীদের সঙ্গে কোনো রকম সম্পর্ক স্থাপনেই ব্যর্থ মোদী। মত বাবুল সুপ্রিয়র।

“সেই জন্যই আমি বাংলার মানুষের সেবা করার জন্য , দিদির (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) নেতৃত্বে কাজ করার জন্য তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।” বুধবার হাওড়ায় এই কথাও বলেন বাবুল।

উল্লেখ্য, 2019 এর লোকসভা নির্বাচনের পরে পশ্চিমবঙ্গে যতই বিজেপি শক্তিশালী হয়েছে, ততই তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে বিজেপি নেতৃত্ব বাঙালী বিদ্বেষী। 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনেও তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে স্লোগান ছিল “জয় বাংলা”। এখন, ভবানীপুর উপনির্বাচনের ঠিক আগের দিন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র এই মন্তব্য তৃণমূলের সেই দাবিকেই জোরালো করার চেষ্টা বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

News By Gourab

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে