Bankura: হাজার টাকা মূল্যের অক্সিমিটারের খরচ ঘণ্টায় ৫০০ টাকা!

0
15
Bankura: হাজার টাকা মূল্যের অক্সিমিটারের খরচ ঘণ্টায় ৫০০ টাকা!

Priyanka Pal, DNI: সম্প্রতি রাজ্য জুড়ে ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ড থেকে শুরু থেকে ভুয়ো সরকারি আধিকারিক সব নিয়েই শোরগোল পড়ে গেছে। স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নিয়ে বাঁকুড়া জেলাতেও ভুয়ো চিকিৎসার অভিযোগ উঠেছে কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে। এবার প্রকাশ্যে এলো বিভিন্ন মেডিকেল পরীক্ষার নামে গাদাগুচ্ছের টাকা নেওয়ার অভিযোগ। অভিযোগ পেয়ে তদন্ত করতে গিয়ে কার্যত চমকে গিয়েছেন বিষ্ণুপুরের মহকুমা শাসক অনুপ কুমার দত্ত।

বিষ্ণপুর শহরের মটুকগঞ্জ এলাকায় একটি বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে বিভিন্ন পরীক্ষায় বেশি টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। হাসপাতালের সামনে একটি চার্ট ঝোলানো তাতে লেখা, অক্সিজেন ভাড়া প্রতি ঘণ্টায় ৫০ টাকা, পালস অক্সিমিটারের প্রতি ঘণ্টায় চার্জ ৫০০ টাকা। কার্ডিয়াক মনিটর ভাড়াও ঘণ্টা প্রতি ৫০০ টাকা।

অভিযোগ খতিয়ে দেখতে হাসপাতালে পৌঁছে যান খোদ মহকুমা শাসক। তাঁরও নজরে আসে হাসপাতালের হেল্প ডেস্কে টাঙানো এই রেট চার্ট। তিনি জিজ্ঞাসাবাদ করলে হাসপাতালের তরফে এক ব্যক্তি বলেন এটা এমনি ঝোলানো রয়েছে। প্রকৃত চার্জ নাকি এটা নয়। তাহলে কেন এই চার্ট ঝোলানো আছে তার কোনো সদুত্তর মেলেনি।

তাহলে হাসপাতালে ঝোলানো এই রেট তালিকা ভুয়ো কিনা তা যাচাই করতে বিষ্ণুপুর মহকুমা শাসক হাসপাতালে পৌঁছে যান। মহকুমা শাসক জানান, অভিযোগ পেয়ে খতিয়ে দেখতে এসেছিলাম, রেট এবং প্যাকেজ কী হিসাবে ওই হাসপাতাল নিচ্ছে। তা জানার জন্য জরুরি তলব করা হয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে।

এদিকে অভিযোগ সামনে আসতেই নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে, ‘ফরম্যালিটি মেন্টেনেন্স’-এর জন্য টাঙানো হয়েছে রেট চার্ট। এই রেট ধরে টাকা নেওয়া হয় না। যদিও এই হাসপাতালে চিকিত্‍সা করাতে আসা অতনু বিশ্বাস নামে এক রোগীর আত্মীয় দাবি করেছেন, এই রেট ধরে টাকা না নেওয়া হলেও কিছু ক্ষেত্রে চার্জ বেশি নিচ্ছে হাসপাতাল।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে