”লড়াইটা ভাল করে করতে হবে, দলকে জেতাতে হবে।” অশোক ভট্টাচার্যকে ফোন বুদ্ধদেবের

0
16

ভোটের ময়দানে এখনো বেশ দাপট রয়েছে লাল শিবিরের। সদ্য শেষ হওয়া কলকাতা পুরসভা নির্বাচনে (Kolkata Municipal Election) বামেদের ভোটব্যাংকে প্রায় ৯ শতাংশ ভোট প্রাপ্তি হয়েছে। তবে এখনো বাকি রয়েছে শিলিগুড়ির পুরভোট। ২২ জানুয়ারি ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়েছে। সব শিবিরেই প্রস্তুতি তুঙ্গে। এই আবহেই রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য ফোন করেন একদা সতীর্থ অশোকবাবুকে। যেহেতু শিলিগুড়িতে বাম শিবির এখনও কিছুটা শক্তিশালী, তাই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বার্তা, ”লড়াইটা ভাল করে করতে হবে, দলকে জেতাতে হবে।” 

Advertisement

২০১১ এ রাজ্যে তৃণমূলের সবুজ ঝড়ের কাছে পরাজিত হলেও, ২০১৬ সালে ফের লাল নিশান উড়িয়েছিলেন অশোক ভট্টাচার্য। বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। একইভাবে পুরসভার দখলও রেখেছিল সিপিএম। তবে একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বামেদের পুরনো এই গড়েও ভোঁতা হয়েছে কাস্তে-হাতুড়ি-তারা। হেরেছেন শিলিগুড়ির ৫ বারের সিপিএম বিধায়ক, রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী অশোক ভট্টাচার্য। 

এরপর চলতি মাসের গোড়াতেই নির্বাচনী রাজনীতিকে বিদায় জানানোর বার্তা দিয়ে অশোক ভট্টাচার্য ফেসবুক পোস্টে জানিয়ে দেন, শিলিগুড়ি পুরনিগমের আসন্ন ভোটে তিনি লড়বেন না। তবে নন-প্লেয়িং ক্যাপ্টেন হিসাবে দলকে জেতানোর চেষ্টা করবেন তিনি।  সেই মত ফোন করেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তাঁর কথায় ”নতুন করে লড়াইয়ের জন্য অনুপ্রেরণা পেলাম।” তবে নিজে ভোটে দাঁড়াবেন না, তাও ফের স্পষ্ট করে দিলেন।

এর থেকেই বুদ্ধবাবু বুঝিয়ে দিলেন, অসুস্থতা তাঁর শরীরকে কাবু করতে পারে, কিন্তু আমৃত্যু তিনি সংগ্রামী ব্যক্তিত্ব। চার দেওয়ালে বন্দি থেকেও সমসময়ের খোঁজ রাখেন, সময়োপযোগী ভাবনা ভাবেন।

Advertisement

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে