Cybercrime: কীভাবে প্রতারিত হচ্ছেন চাকরিপ্রার্থীরা, সাইবার সচেতনতায় ওয়েস্ট বেঙ্গল পুলিশ।

0
37

বেকারত্ব, চাকরির অভাব অনেকদিন ধরেই সমস্যায় ফেলেছে আজকের যুব সমাজকে। তার ওপর করোনা ভাইরাসের প্রকোপে কাজ হারিয়েছে বহু যুবক, যুবতীরা। বেকারত্বের সমস্যা বেড়েছে কয়েকগুন। আর এই বেকারত্বের সুযোগ নিয়েই চাকরিপ্রার্থীদের ফেক ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রতারিত করছে প্রতারকরা। চাকরিপ্রার্থীদের সাইবার সচেতনতা বৃদ্ধি করতে উদ্যোগী ওয়েস্টবেঙ্গল পুলিশ।

জনসাধারনের সাইবার সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে ৭ সেপ্টেম্বর থেকে ফেসবুকে ওয়েস্টবেঙ্গল পুলিশ নিজেদের পেজে বিভিন্ন সাইবার সচেতনতার ভিডিও আপলোড করে চলেছে। ১৪ নভেম্বর সেই রকই একটি ভিডিও আপলোড করা হয় ওয়েস্টবেঙ্গল পুলিশের তরফ থেকে। সাইবার সচেতনতা ভিডিওর অষ্টম পর্বের বিষয় ছিল বেকার ও চাকরিপ্রার্থী যুবক, যুবতীদের ফেক ওয়েবসাইটের ব্যাপারে সচেতনতা বৃদ্ধি করা। রাজ্য পুলিশের ডিএসপি বিদিত মণ্ডল বোঝান কীভাবে চাকরিপ্রার্থীরা ফেক ওয়েবসাইটের ফাঁদে পড়ছেন।

সরকারি চাকরির পরীক্ষার্থীদের এবং তাদের পরিবারকে নানাভাবে টোপে ফেলছে প্রতারকরা। ডিএসপি বিদিত মণ্ডল বলেন, প্রতারকরা নানাভাবে চাকরিপ্রার্থীদের সাথে যোগাযোগ করছে এবং তাদের বলছে তাদের ওপর মহলে হাত রয়েছে চাকরির পরীক্ষায় পাশ করিয়ে দেবে। তারজন্য কোন টাকাও নেবেন না প্রথমে,নিয়োগপএ পাওয়ার পর এমনকি চাকরি করে প্রথম বেতন পাওয়ার পর তবে তিনি টাকা নেবেন। টাকা যেহেতু অনেক পরে নেবে বলছে তাই সহজেই তাকে বিশ্বাস করে নিচ্ছে চাকরিপ্রার্থী ও তার পরিবারের লোকেরা।

পরীক্ষার কিছুদিন পরেই একটি ফেক ওয়েবসাইট তৈরী করছে প্রতারকরা যেটি আসল ওয়েবসাইটের সাথে হুবহু মিল। তারপর এই ফেক ওয়েবসাইটে চাকরিপ্রার্থীকে পাশ বলে দেখিয়ে দিচ্ছেন প্রতারক। কিন্তু আদেও পাশ করেননি প্রার্থী। তারপর চাকরিপ্রার্থী প্রতারককে বিশ্বাস করে তার সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করতে থাকলে তখন নানা ব্যস্ততার অজুহাত দেখাতে থাকে প্রতারক। চাকরিপ্রার্থীর ইন্টারভিউ পাশ করানোর জন্য প্রতারক বলেন ইন্টারভিউ বোর্ডে যে আছে সেই লোক টাকা চাইছে এবং যেহেতু সে আগে টাকা চাইছে তাই চাকরি পেয়ে আর কোন টাকাই দিতে হবে না চাকরিপ্রার্থীকে।প্রধান পরীক্ষায় পাশ করার ফলে প্রতারকের অপর ভরসা বেড়ে যায় চাকরিপ্রার্থী ও তার পরিবারের টাকা পাঠিয়ে দেন প্রতারককে।তারপরেই আর খোঁজ পাওয়া যায় না প্রতারকের। আবার অনেক সময় দেখা যায় ভুয়ো নিয়োগপএ পেয়ে গেছেন চাকরিপ্রার্থী।কিন্তু জয়েন করতে গিয়ে দেখছেন তার চাকরিই হয় নি। তাই এরকম চক্র ও ভুয়ো ওয়েবসাইট থেকে চাকরিপ্রার্থীদের সজাগ থাকার জন্য সচেতনতা বৃদ্ধি করে আবেদন জানাচ্ছে ওয়েস্টবেঙ্গল পুলিশ।

News By Tania

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে