“এখন খবরের চ‍্যানেল দেখলে আমাদের বাচ্চারা বিগড়ে যাবে”! মিডিয়া প্রসঙ্গে কেন এমন বিষোদগার দেবের?

0
14

অভিনয়, রাজনীতি আর ব‍্যক্তিগত জীবন দিব‍্যি ব‍্যালেন্স করে চলতে পারেন তিনি। তৃণমুলের টিকিটে দুবার ঘাটালের সাংসদ নির্বাচিত হয়েছেন। সংসদে মাতৃভাষায় কথা বলে আলোড়ন জাগিয়েছিলেন। হ্যাঁ, তিনি দীপক অধিকারী। ফিল্ম দুনিয়ায় যদিও তাঁর পরিচয় দেব নামে।

Advertisement

কিন্তু এবার রাজনৈতিক কেরিয়ার নিয়ে নতুন করে চিন্তা ভাবনা করছেন তিনি। জনৈক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমন‌ই কিছু বক্তব্য উঠে এলে দেবের মুখ থেকে। কি বলছেন তিনি?

দেবের কথায়, “এখন রাজনীতিতে শুধু রাজটাই পড়ে আছে। নীতি আর নেই। শুধু মাত্র ‘মমতাদি’কে ভালবেসেই এত বছর ধরে রাজনীতিতে রয়েছি। ওই মানুষটাকে না বলতে পারিনা।”

চব্বিশের নির্বাচন নিয়ে তার কি মত? দেব বললেন, “১০ বছর অনেকটা সময়। তাই সম্ভবত আগামী ভোটে প্রার্থী হিসাবে নাও দেখা যেতে পারে আমায়।”

প্রসঙ্গত, ২০১৪ তে নিজের অভিনয় কেরিয়ারের শীর্ষে থাকার সময় রাজনীতিতে পা রেখেছিলেন দেব। তবে এখন এমন কি হল যে রাজনীতির আঙিনা থেকে সরতে চাইছেন তিনি?

দেবের আগাম আশঙ্কা, আগামীতে দেশের রাজনীতিতে খারাপ সময় আসতে চলেছে। রাজনীতির ময়দানে সবাই বড় বড় অভিনেতা। দেবের কথায়, “এখন খবরের চ‍্যানেল দেখলে আমাদের বাচ্চারা বিগড়ে যাবে। কারণ ওটা থেকে আর কিছুই শেখার নেই। বাচ্চারা ভাববে, সকলেই মনে হয় চোর! আমার মনে হয় এমন একটা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, যেখানে আমাদের পরের প্রজন্ম হয়তো টিভিই দেখবে না।”

মূলতঃ রাজনীতির অভ‍্যন্তরের নোংরামি দেখেই তার মন বিষিয়ে উঠছে। দেবের স্পষ্ট কথা,বড় বড় নেতারা হেরে গেলেই দল বদলে নেন। আর যে কর্মীরা ওই নেতাকে এতদিন ধরে সমর্থন করে এল তারা মার খায়। তাই নিজের দলের কর্মীদের তাঁর পরামর্শ, তাঁর উপরে নির্ভর করে রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত না নিতে। বরং নিজের পরিবারের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

Advertisement

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে