Kakulia Murder: মুম্বাই থেকে গ্রেফতার গড়িয়াহাট জোড়া খুন কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত ভিকি।

0
51

গড়িয়াহাট জোড়া খুন কান্ডে গ্রেফতার মূল অভিযুক্ত ভিকি হালদার। ভিকির সন্ধানে দক্ষিন ২৪ পরগনার বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে গোটা সুন্দরবন চষে ফেলেছিল কলকাতা পুলিশ। কিন্তু কোথাও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না ভিকির। ভিকির মা মিঠু হালদার গেফতার হন বহুদিন আগেই তাদের জেরা করেও ভিকির খোঁজ চালাচ্ছিল তদন্তকারীরা। অবশেষে বানিজ্য নগরী মুম্বাই থেকে গ্রেফতার হল ভিকি হালদার ও তার সঙ্গী শুভঙ্কর মণ্ডল।

একটি সূত্র ধরেই শনিবার রাতে মুম্বাইএর পারোল ইস্টের একটি আবাসন থেকে ভিকি ও শুভঙ্করকে গ্রেফতার করল কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ। পুলিশ সূত্রে খবর ট্রানজিট রিমান্ডে দুই অভিযুক্তকে কলকাতায় নিয়ে আসা হচ্ছে।

১৭ অক্টোবর গড়িয়াহাটের কাকুলিয়া রোডের বাড়িতে খুন হন কর্পোরেট কর্তা সুবীর চাকি ও তার গাড়ি চালক রবীন মণ্ডল। সেই খুনের ঘটনায় গ্রেফতার করা হয় পরিচারিকা মিঠু হালদারকে। মিঠুকে জেরা করেই পুলিশ খোঁজ পান মিঠুর বড় ছেলে ভিকিই খুনের ঘটনার মূল পাণ্ডা। মিঠুকে জেরায় জাহির গাজি ও বাপি মণ্ডল নামে আরও দুজনের খোঁজ পায় তদন্তকারী গোয়েন্দারা। তারপর পাথরপ্রতিমা থেকে বাপি ও জাহির গ্রেফতার হলেও ভিকিকে খুজে পায় নি পুলিশ। ধৃতদের জেরা করে বিভিন্ন সূত্র ধরে ভিকি পর্যন্ত পৌঁছাতে চাইছিলেন তদন্তকারীরা। অবশেষে মেলে একটি সূত্র। সেই মত মুম্বাইতে হানা দেন গোয়েন্দারা। মুম্বাই পুলিশের সাহায্য নিয়ে গ্রেফতার করা হয় ভিকি ও তার সঙ্গীকে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মুম্বাই এর পারোল ইস্টের কালাচৌকি এলাকার একটি ৪৮ তলা নির্মীয়মান বিল্ডিং এ নিরাপত্তারক্ষীর কাজ করছিলেন ভিকি ও শুভঙ্কর দুজনই। সেখান থেকেই দুজন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেন কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দারা। ভিকিকে কলকাতায় নিয়ে এসে গড়িয়াহাট জোড়া খুন কাণ্ডের আসল উদ্দেশ্য জানতে চাইছেন গোয়েন্দারা।

News By Tania

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে