পুরভোটের একদিন আগে পর্যন্তও ৬৮ নং ওয়ার্ডে চলল ভগ্নি বনাম ভাবশিষ্যা ঝগড়া

0
17

কালীপুজোর দিন প্রয়াত হন সুব্রত। ২৬ নভেম্বর রাতে তৃণমূলের প্রার্থীতালিকা প্রকাশের পর থেকেই বিতর্কের সূত্রপাত। পুরভোটের একদিন আগে পর্যন্তও ৬৮ নং ওয়ার্ডে চলল সেই ঝগড়া। শুক্রবার রাতে ১৯এ বালিগঞ্জ প্লেসে বোমাবাজি করা হয় বলে অভিযোগ। সুব্রত ভগ্নি তনিমার অভিযোগ, সুর্দশনার লোকজন ভোটের আগে সন্ত্রাসের পরিবেশ তৈরি করতে চাইছেন। এই অভিযোগে তিনি গড়িয়াহাট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

Advertisement

সুর্দশনার বেশ কয়েক জন অনুগামীর নাম দেওয়া হয়েছে তাঁর অভিযোগপত্রে। তনিমার অভিযোগের জবাবে দক্ষিণ কলকাতা তৃণমূলের সভাপতি দেবাশিস কুমার বলেন, ‘‘বোমা পড়ার বিষয়ে যে কথা বলা হচ্ছে, তা নিয়ে পুলিশ ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে। আর নির্দল প্রার্থী যে অভিযোগ করছেন, যে ভোটের দিন এলাকায় সন্ত্রাস হতে পারে। তেমন কোনও আশঙ্কা করা উচিত নয়। কারণ পুলিশ-প্রশাসন সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন পরিচালনা করবে। যাতে প্রত্যেক ভোটার ভোট দিতে পারেন, সেই বিষয়টি সুনিশ্চিত করা হবে।’’

উল্লেখ‍্য, দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, প্রয়াত নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েই তাঁর ভগ্নিকে প্রার্থী করা হচ্ছে। কিন্তু তার পরদিনই তাঁর থেকে ফিরিয়ে নেওয়া হয় দলীয় প্রতীক। আবারও টিকিট দেওয়া হয় বিদায়ী কাউন্সিলর তথা সুব্রত এর ভাবশিষ‍্যা সুর্দশনাকে। এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে নির্দল প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিল করেন তনিমা। তারপর থেকেই শুরু হয় বিতর্ক।

Advertisement

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে