Maid tourcherd baby; পরিচারিকার হাতে এক অমানবিক নির্যাতনের শিকার সদ্যজাত শিশু।

0
90



আজকাল কাজের জন্য প্রায় সারাদিন বাড়ির বাইরে থাকেন বাবা-মা।সন্তানকে দেখার মতো বাড়িতে তেমন কেউ নেই। সেই কারণে পরিচারিকার হাতেই সন্তানের দেখাশোনার দায়িত্ব দিয়ে বাইরের কাজ সামলান দু’জন। কিন্তু এমন হবে তা কি করে জানবে পরিচারিকার হাতেই এমন শারীরিক নির্যাতনের শিকার হবে তাঁদের দুধের সন্তান।

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পাবলিক হেলথের ডিসট্রিক্ট ম্যানেজার নবমিতা ভট্টাচার্য। তাঁর স্বামী দেবাশীস দাস পেশায় চিকিৎসক তিনি। তিনি বাঁকুড়ায় কর্মরত। ওই দম্পতি পাঁশকুড়ার মেচগ্রামে একটি ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকেন। ২০১৮ থেকে পরিচারিকার কল্পনা সেন স্থানীয় বাসিন্দা কাজ করেন।

গত বছরের নভেম্বরে একটি শিশু কন্যার জন্ম দেন নবমিতা। কিন্তু কয়েক মাস আগে পরিচারিকা কল্পনার আচরণে কিছুটা সন্দেহ দেখা দাস দম্পতির। সন্দেহের বশেই পরিচারিকার অলক্ষে ফ্ল্যাটের মধ্যে সিসি ক্যামেরা লাগান তাঁরা। এরপর গতকাল দুপুর নাগাদ দেবাশিস মেয়েকে দেখার জন্য বাঁকুড়া থেকে নিজের মোবাইলে অনলাইনে সিসিটিভি ফুটেজ দেখেন। হতবাক হয়ে যান তিনি।

দেবাশিস দেখতে পান ওই পরিচারিকা তাঁর ছোটো শিশুর ওপর শারীরিক অত্যাচার চালাচ্ছে। কল্পনা কখনও শিশুটির পায়ে ধরে বিছানার ওপর আছাড় মারছে। কখনও আবার শিশুটির শরীরে সজোরে আঘাত করছে। কখনও বা ঘুম পাড়ানোর জন্য জোরে জোরে চড় থাপ্পড় মারছে। এরপরই স্ত্রীকে পুরো বিষটি জানান দেবাশিসবাবু। এবং তারা ফিরে আসেন। এরপর গতকাল পাঁশকুড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয় পরিচারিকা কল্পনার বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত পরিচারিকাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ তাকে তমলুক আদালতে তোলা হয়। তবে ঠিক কী কারণে এই কাজ করছিল কল্পনা সেই বিষয়ে তার কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। তবে পুলিশি জেরায় সে সব স্বীকার করেছে।

এখন কর্মসূত্রে বেশির ভাগ বাবা-মা বাড়ির বাইরে থাকেন। সেক্ষেত্রে নিজের সন্তানকে পরিচারিকার তত্ত্বাবধানে রেখে যান তাঁরা। কিন্তু তাঁদের কাছে কতটা সুরক্ষিত সন্তানরা সেই বিষয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।বাচ্চাকে একা ছাড়ার ক্ষেত্রে সতর্ক হন। যদি পরিচারিকার আচার-আচরণের ক্ষেত্রে হঠাৎ পরিবর্তন লক্ষ করেন তাহলে সেই মানুষকে কাজে না রাখাই ভালো। কিন্তু কোন মানুষ কেমন হবেন সেই বিষয়ে আগে থেকে বলা সম্ভব নয়। এবং সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো দরকার, সেক্ষেত্রে নজরদারি করা সম্ভব হবে।

News By Ritika

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে