‘অনৈতিক মন্তব্য করেছেন মুখ্যমন্ত্রী, ক্ষমা চাইতে হবে ওনাকে, চ্যারিটি ইস্যু নিয়ে সরব শুভেন্দু

0
17

গুজরাটের বডোদরা শহরে মিশনারিজ অফ চ্যারিটির শাখার সন্ন্যাসিনীরা, জোর করে বাইবেল পড়তে বাধ্য করতেন হিন্দু তরুণীদের। এই অভিযোগের পর শোনা গিয়েছিল, তদন্তের স্বার্থে মাদার টেরিজা প্রতিষ্ঠিত মিশনারিজ অব চ্যারিটির সব ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে কেন্দ্র সরকার।

Advertisement

ট্যুইটে এই জন্য কেন্দ্রকে আক্রমণ করতেও বাদ দেননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও নিজেদের দিকে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে সংস্থা। যদিও কলকাতায় মিশনারিজ অফ চ্যারিটির সদর দফতর মাদার হাউজ এবিষয়ে কোন প্রতিক্রিয়া দেয়নি।

মুখ্যমন্ত্রী ট্যুইটে লিখেছিলেন, ‘বড়দিনের উৎসবের মাঝেই কেন্দ্রের পক্ষ থেকে মাদার টেরিজার মিশনারিজ অব চ্যারিটির সব ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়ার খবর শুনে আমি খুবই বিস্মিত। এরকম করলে ২২ হাজার রোগী এবং কর্মীরা খাবার এবং ওষুধ পাবেন না। আইন সবার উপরে থাকলেও, এভাবে মানবিক কাজকর্ম বন্ধ হয়ে যাওয়া ঠিক নয়’।

পরবর্তীতে শোনা যায়, এই ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা। কোনও অ্যাকাউন্টই বন্ধ করা হয়নি- এমনটাই জানিয়ে দেয় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। এই ঘটনার পরবর্তীতে মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘অনৈতিক মন্তব্য করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রীর করা মন্তব্যের কারণে তাঁকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে। ওনার উদ্দেশ্য সৎ ছিল না’।

Advertisement

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে