ভালোবেসে কিনে আনা মাটন, চা-পাতা ছুঁয়ে ফেলে গালিগালাজ! রানুর নিকৃষ্ট ব্যবহারের কবলে সাধারণ যুবক

0
46

রানাঘাটের রানু মন্ডলকে কে না চেনে। স্টেশনে গান গেয়ে ভাইরাল হ‌ওয়ার পর মুম্বাইয়ে পাড়ি, ফের রানাঘাটে ফিরে আসা। জীবন যেন রোলার কোস্টার। মাঝেমধ্যেই তার সাথে দেখা করতে যান ই‌উটিউবাররা, যান কন্টেন্টের আশায়। ভিডিও ভাইরাল করার অভিপ্রায়ে।

Advertisement

সম্প্রতি আবারও রানু মন্ডলকে নিয়ে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে নেট মাধ্যমে। যেখানে তাঁর অন্য একটি রূপ দেখা গেল। এক যুবককে রীতিমতো গালিগালাজ করতেও দেখা গেল তাঁকে। ভিডিওটির শুরুতেই রানু মন্ডল বলছে – “কোল্ডড্রিংস নিয়ে আসোনি কেন?” এরপর যে ব্যক্তি তাঁকে খাবার দিয়েছে সে বলছে যে- “কোল্ডড্রিংস তো রয়েছে।” আর সেই কথায় রানুদি বলেন- “ওটা কোল্ডড্রিংস না, কোথায় তুমি রোজ আসো?” এরপর ওই ব্যক্তি বলেন- “আমার বাড়ি কত দূর জানো?”

তারপর রানুকে বলতে শোনা যায়, “যেখানেই হোক। তুমি কখনও আসো। রোজ তো আসো না। ‘সালা’। ওই জানোয়ার এসেছিল সে বলেছিল মাছ নিয়ে এসে দেবে। মাছ আনা তো দূর সে আসেইনি। মরেছে কোথায় গিয়ে তাঁর ঠিক নেই। মিথ্যেবাদীর দল।” এরপর ওই ব্যক্তি বলেন, “বোঝ না কেন?” তারপর রানু দি বলেন, “বুঝি তো।” এই বলতে বলতেই সে জানলা দিয়ে ছুঁড়ে ওই ব্যক্তির আনা মাংস ফেলে দেয়। আর বলেন, “সালা ঠিক আছে। তোমার চা পাতা নিয়ে যাও।”

এরপর‌ই ওই ব্যক্তি বেরিয়ে আসে। ক্যামেরার মুখোমুখি হয়ে বলেন, “তোমরা দেখলে আমার সামনেই দিদি মটন ছুঁড়ে ফেলে দিল। তাহলে আপনারাই বলুন লোক একে নিয়ে রোস্ট করে এটা ঠিক না ভুল। আমি দিদিকে ভালো দেখানোরই চেষ্টা করি। আমি ভালোবেসে দিদিকে এনে দিয়েছিলাম। আমার সামনেই সেটি ফেলে দিল। আমি অনেকবার দিদির কাছে এসেছি। কিন্তু দিদি আজ আমার সম্মান দিল না। আজ দিদিকে একটা কম্বলও দিয়েছি। কিন্তু আজ সে আমার সম্মানের ভাজাপাও করে দিয়েছে।”

তিনি আরও বলেন যে, “আমি এতদিন দিদিকে ভালোবাসতাম, সম্মান করতাম। এমনকি আজ আমি অনেক পয়সা খরচ করে দিদির জন্য অনেক কিছু কিনে দিয়েছি। তবে, আজ দিদি চা পাতা ফেলে দিল। নিয়ে যেতে বললো। কিন্তু আমি নিয়ে আসিনি। আমি দিদিকে চিকেন, মটন, মাছ এনে দিয়েছি অনেকবার। কিন্তু আজ দিদি আমার সামনেই মটন ফেলে দিল।” রানু মন্ডলের এই ঘটনায় ওই ব্যক্তি যে বেশ ক্রুদ্ধ হয়েছে তা ভালোই বোঝা যাচ্ছে।

Advertisement

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে