Panskura: পাঁশকুড়ায় কয়েক কোটি টাকা সংগঠিত প্রতারণা।

0
61

পশ্চিম মেদিনীপুর:-চাকরি দেওয়ার নাম করে কয়েককোটি টাকার প্রতারণার ঘটনায় গ্রেফতার করা হলো তিনজনকে যারমধ্যে রয়েছে একজন স্কুল শিক্ষকও। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে পাঁশকুড়া থানার বাহার গ্রামের বাসিন্দা পেশায় দাসপুরের রানিচক দেশপ্রাণ হাই স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক সন্দীপ করণ ও তারই প্রাক্তন ছাত্র দাসপুর থানার মহবতপুরের বাসিন্দা সুশোভন বেরা চাকরি দেওয়ার নাম করে কয়েক লক্ষ টাকা প্রতারণা করেছেন বলে অভিযোগ । এর সাথে যুক্ত আছে একজন সব্জী ব্যবসায়ী অশোক কুমার বর্মন, বাড়ি পাঁশকুড়া থানার রুপদয়পুরে।
দাসপুর থানার পুলিশ স্বপ্রণোদিত মামলা দায়ের করে সুশোভন বেরার বিরুদ্ধে। এরপর শনিবার দিন সুশোভন কে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সুশোভন তার এই প্রতারণার কথা স্বীকার করে এবং তার কাছ থেকেই পাওয়া যায় আরো দুই অভিযুক্তের হদিস এবং তাদের গ্রেফতার করে দাসপুর থানার পুলিশ।
পুলিশের তরফে জানানো হয় সুশোভন কে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করার সময় উদ্ধার হয়েছে বেশ কয়েকটি দামি মোবাইল যার বাজারমূল্য কয়েক লক্ষ টাকা এবং উদ্ধার হয়েছে একটি ল্যাপটপ,একটি ট্যাব ও জেলার একাধিক আধিকারিকের নকল স্টাম্প ও লেটার প্যাড।।রবিবার অভিযুক্ত দের ঘাটাল আদালতে তোলা হলে শিক্ষক সন্দীপ করনকে ৩ দিনের জেল হাজত এবং সব্জী ব্যবসায়ী অশোক কুমার বর্মন ও সুশোভন বেরাকে ৩ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেয় ঘাটাল মহকুমা আদালত।
প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে দাসপুর থানার পুলিশ গ্রেফতার করে কলকাতা নিবাসী এক মহিলাকে যার বিরুদ্ধেও ছিল চাকরি দেওয়ার নাম করে কয়েক লক্ষ টাকা প্রতারণার অভিযোগ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে