Tripura: লক্ষ্য ২৩’এর বিধানসভা, ত্রিপুরা সফরে Abhishek Banerjee

0
119

Priyanka Pal, DNI: ২০২১- এর নির্বাচনে জয় এসেছে। আর এবারের লক্ষ্য ত্রিপুরা। ২০২৩ পড়শি রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেসকে আঞ্চলিক থেকে জাতীয় স্তরে ছড়িয়ে দিতে মরিয়া দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ্য দলের নেতা কর্মীরা। সেই লক্ষ্যে আজ ত্রিপুরায় পা রাখছেন সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Bandyopadhyay)। ৩০ জুলাই যাওয়ার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু সূচি বদলে আজ যাচ্ছেন তিনি। দশটার বিমানের ত্রিপুরার উদ্দেশ্যে রওনা দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

সুত্রে খবর, বেলা বারোটায় ত্রিপুরার বিখ্যাত ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরে পুজো দিয়ে কর্মসূচি শুরু করবেন অভিষেক। দুপুর সাড়ে তিনটে নাগাদ আগরতলার একটি হোটেলে সাংবাদিক সম্মেলন করবেন তিনি। বৈঠক সারবেন স্থানীয় নেতৃত্বের সঙ্গে। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আগমনে আগরতলায় টাঙানো হয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পোস্টার। অভিষেকের ত্রিপুরায় পৌঁছনোর আগেই তৈরি হল উত্তেজনা। তাঁর পৌঁছানোর আগেই আগরতলায় (Agartala) অভিষেকের ছবি দেওয়া ব্যানার, হোর্ডিং সব ছিঁড়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। তৃণমূলের পক্ষ থেকে সরাসরি অভিযোগ করা হচ্ছে বিজেপির বিরুদ্ধে। পাল্টা কটাক্ষ করেছে তৃণমূল। তৃণমূল কংগ্রেস টুইট করে জানিয়েছে, “বিপ্লব দেব কাকা তুমি যে ভয় পেয়ে গেলে সেটা বোঝাই যাচ্ছে ভালো মতন। এই ভয় টা দেখে ভালো লাগলো। ত্রিপুরায় খেলা হবে।”

ত্রিপুরা পৌঁছেই অভিষেকের ম্যাজিক শুরু হয়ে গিয়েছে। পূর্ব গোকুলনগর হাইস্কুল স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বদলির প্রতিবাদে জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বসেছিল স্কুল পড়ুয়ারা। অনেক বুঝিয়েও তাদের অবস্থান থেকে সরাতে পারেনি ত্রিপুরার পুলিশ। ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরের কাছে চড়িলাং এলাকায় আটকানো হয় অভিষেকের কনভয়। উঠল ‘অভিষেক ব্যানার্জী গো ব্যাক স্লোগান’, দেখানো হল কালো পতাকাও। অভিষেক নিজে গাড়ি থেকে নেমে কথা বলেন পড়ুয়াদের সঙ্গে। তারপর তাঁর রাস্তা ছেড়ে দেওয়া হয়।
যে অবরোধ সকাল থেকে পুলিশ বলেও ওঠাতে পারেনি, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কথা বলতেই তা মুহূর্তের মধ্যেই উঠে গেল।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে