Uttarpradesh: ৭০ এ পূর্ব পাকিস্তান থেকে সব হারিয়ে ভারতে আসা ৬৩ বাঙালি পরিবারকে পূর্নবাসন দেওয়ার সিদ্ধান্ত যোগী সরকারের।

0
25

কয়েক মাস পরেই উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। ইতিমধ্যে কোমর বেঁধে ময়দানে নেমে পড়েছে সব রাজনৈতিক দলগুলি। তারই মধ্যে বড় সিদ্ধান্ত যোগী সরকারের। ১৯৭০ সালে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান থেকে সব হারিয়ে বহু বাঙালি হিন্দু পরিবার ভারতে এসেছিল। উত্তরপ্রদেশেও রয়েছে এমন প্রায় ৬৩টি পরিবার। এবার তাদের পূর্নবাসনের সিদ্ধান্ত নিল যোগী আদিত্যনাথের সরকার।

উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রীসভার বৈঠকে পূর্নবাসনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কানপুরের দেহাত জেলায় ১২১.৪১ একর জমিতে ৬৩ টি বাঙালি হিন্দু পরিবারের পূর্নবাসনের ব্যবস্থা করা হবে। মন্ত্রীসভার বৈঠকে ঠিক করা হয়েছে প্রতিটি পরিবারকে চাষের জন্য ২ একর করে জমি দেওয়া হবে। এছাড়া বসবাসের জন্য ২০০ বর্গফুট করে জমি ১ টাকা লিজে ৩০ বছরের জন্য পাবে পরিবারগুলি। জমিগুলি ২বার ৩০-৩০ বছর করে সবচেয়ে বেশি ৯০ বছরের জন্য পুনর্নবীকরণ করা যাবে। মুখ্যমন্ত্রী আবাস যোজনার আওতায় পরিবারগুলিকে বাড়ি করার জন্য ১.২ লক্ষ টাকা করে দেবে সরকার। এছাড়া ১০০ দিনের কাজে ভূমি সংস্করণ ও সেচের বন্দোবস্ত করা হবে।

যোগী সরকার জানিয়েছে, ১৯৫০ ও ১৯৫৪ সালের পূর্নবাসন অ্যাক্টের আওতায় ভারত সরকারের পক্ষ থেকে ৩৩২ টি পরিবারকে পূর্নবাসন দেওয়া হয়েছিল। ৬৫ টি বাঙালি পরিবারকে মেরঠের হস্তিনাপুরে অবস্থিত মদন সুত মিলের কারখানায় কাজ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ১৯৮৪ সালের ৮ আগস্ট এই কারখানাটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কাজ হারায় ৬৫ টি হিন্দু বাঙালি পরিবারই। যার মধ্যে ২ টি পরিবারের সকল সদস্যের মৃত্যু হওয়ায় রয়ে গিয়েছে ৬৩ টি পরিবার। এই ৬৩ টি পরিবারেরই এবার পূর্নবাসনের ব্যবস্থা করার সিদ্ধান্ত নিল যোগী সরকার।

এটা কতটা জনতা দরদী রাজনৈতিকভাবে তা আগামী দিনে বোঝা যাবে বলেই মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের

News By Our Special Correspondence

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে